26.9 C
New York
Tuesday, August 3, 2021

চীনা কমিউনিস্ট পার্টিতে যোগ দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন জ্যাকি চ্যান

২০১৯ সালে চীনা আগ্রাসনের প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছিলেন হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থী তরুণেরা। তাঁদের বিক্ষোভকে প্রতিহত করতে কড়া পদক্ষেপ নিয়েছিল বেইজিং। সবাই বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেও তখন বিপরীতে হেঁটে সিপিসির পাশে দাঁড়িয়েছিলেন জ‍্যাকি চ্যান। তাঁর দাবি ছিল, এটা বেইজিংয়ের বিরুদ্ধে চক্রান্ত। এ সময় বিশ্বজুড়ে তাঁর ভূমিকার সমালোচনা হয়।

সোমবার চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস-এর এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, চীনা ফিল্ম অ্যাসোসিয়েশনের ভাইস চেয়ারম্যান জ্যাকি চ্যান সিপিসিতে যোগদানের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। প্রতিবেদন অনুযায়ী চ্যান বলেন, ‘আমি সিপিসির বিশালতা দেখতে পাচ্ছি। এই দল যা বলে, তা করে দেখায়। ১০০ বছরের প্রতিশ্রুতি দিয়ে মাত্র কয়েক দশকেই করে ফেলে। আমি সিপিসির সদস্য হতে চাই।’

২০১৩ সাল থেকে নিজেকে কমিউনিস্টপন্থী বলে ঘোষণা করেছেন জ্যাকি চ্যান। কমিউনিস্ট পার্টি মনোনীত উপদেষ্টা সংস্থা, চীনা পিপলস পলিটিক্যাল কনসালটিভ কনফারেন্সের (সিপিসিসি) সদস্য হলেও সক্রিয় রাজনীতিতে অংশ নেননি। ২০২১ সালে হংকংয়ের নির্বাচনী সংস্কারের পরে জ্যাকি চ্যান একটি নির্বাচন কমিটির সদস্যও হয়েছেন।

জ্যাকি চ্যান এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘অনেক দেশ ঘুরেছি। কিন্তু আমি বলতে পারি, এই সময়ে আমার দেশ সবচেয়ে দ্রুত বিকশিত হয়েছে। চীনা হওয়ায় আমি গর্বিত এবং যেখানেই যাই না কেন, পাঁচ তারকাখচিত লাল পতাকা বিশ্বের সব জায়গায়ই শ্রদ্ধা পাচ্ছে। হংকং ও চীন দুটিই আমার জন্মভূমি ও বাড়ি। চীন আমার দেশ। আমি আমার বাড়িকে ভালোবাসি। আমার দেশকেও ভালোবাসি।’

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles

%d bloggers like this: